জাতীয়

বাইডেনের নৈশভোজে যোগ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

  প্রতিনিধি ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ , ১২:২২:২৪

Spread the love

বাইডেন ৭৮তম জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে অংশ নিতে নিউইয়র্কে আগত রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানদের সম্মানে সন্ধ্যায় ‘মেট্রোপলিটন মিউজিয়াম অব আর্ট’-এ ভোজসভার আয়োজন করেন।যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের এ নৈশভোজে যোগ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায়।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন প্রধানমন্ত্রীর ব্যস্ত কর্মসূচি নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ সংবর্ধনার কথা সাংবাদিকদের জানান।

প্রধানমন্ত্রীর কন্যা এবং ক্লাইমেট ভালনারেবল ফোরামের (সিভিএফ) থিম্যাটিক অ্যাম্বাসাডর সায়মা ওয়াজেদ এ সময় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন। ভোজসভায় প্রধানমন্ত্রী বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্র ও সরকারপ্রধানদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন।

একই দিন তিনি আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থার মহাপরিচালক রাফায়েল মারিয়ানো গ্রোসি, শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট রনিল বিক্রমাসিংহে, ডেনমার্কের প্রধানমন্ত্রী মেট্টে ফ্রেডেরিকসেন, পূর্ব তিমুরের প্রেসিডেন্ট হোসে রামোস হোর্তার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ ও দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করবেন প্রধানমন্ত্রী।

বাইডেনের নৈশভোজে যোগ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী
উন্নয়নশীল দেশে কমিউনিটি স্বাস্থ্যসেবায় সহায়তার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর
এর আগে গতকাল নিউইয়র্কের রকফেলার সেন্টারে ইউএনআইডিও ও ডেলয়েট আয়োজিত ‘খাদ্য ভাবনা-খাদ্য সরবরাহ চেইন উদ্ভাবনে এসডিজিকে ত্বরান্বিত করার সহযোগিতা’ শীর্ষক একটি উচ্চপর্যায়ের সম্মেলনে মূল বক্তব্য দেন। একই দিনে তিনি ট্রাস্টিশিপ কাউন্সিল চেম্বারে ‘এসডিজি সামিট-লিডার্স’ ডায়ালগ ৪ (এসডিজি অর্জনের জন্য সমন্বিত নীতি ও পাবলিক প্রতিষ্ঠানকে শক্তিশালী করা) শীর্ষক আরেকটি সম্মেলনেও ভাষণ দেন।

সন্ধ্যায় নিউইয়র্কের লেক্সিংটন ভেন্যুতে জাতিসংঘ মহাসচিবের বৈশ্বিক শিক্ষাবিষয়ক বিশেষ দূত ও বিশ্ব স্বাস্থ্য অর্থায়নের জন্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার দূত গর্ডন ব্রাউন এবং গ্লোবাল বিজনেস কোয়ালিশন ফর এডুকেশনের এক্সিকিউটিভ চেয়ার সারাহ ব্রাউন আয়োজিত জাতিসংঘ ২০২৩ টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) শীর্ষ সম্মেলন উপলক্ষে আয়োজিত উচ্চপর্যায়ের ব্যক্তিগত এক নৈশভোজে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে গত রোববার জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৮তম অধিবেশনে যোগ দিতে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক পৌঁছান। জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি মুহাম্মদ আব্দুল মুহিত এবং যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মুহাম্মদ ইমরান বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানান।

প্রধানমন্ত্রী ১৭ থেকে ২২ সেপ্টেম্বর নিউইয়র্কে অবস্থান শেষে ২৩ থেকে ২৯ সেপ্টেম্বর ওয়াশিংটনে অবস্থান করবেন। তিনি ২২ সেপ্টেম্বর সাধারণ অধিবেশনে ভাষণ দেবেন। এরপর প্রধানমন্ত্রী ওয়াশিংটন ডিসিতে যাবেন। সেখান থেকে ২৯ সেপ্টেম্বর লন্ডনের উদ্দেশে রওনা করবেন। ৪ অক্টোবর দুপুরে ঢাকায় ফিরবেন তিনি।

আরও খবর

Sponsered content