আন্তর্জাতিক

আফগানিস্তানে মেয়েদের রূপচর্চা কেন্দ্র বন্ধের নির্দেশ

  প্রতিনিধি ৪ জুলাই ২০২৩ , ৩:৫৯:১২

Spread the love

 

 

যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ আফগানিস্তানে রাজধানী কাবুলসহ অন্যান্য প্রদেশে মেয়েদের রূপচর্চা কেন্দ্র বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে তালেবান।

এ ব্যাপারে একটি মৌখিক ডিক্রি জারি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তালেবান সরকারের নীতি ও নৈতিকতা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মোহাম্মদ আকিফ মাজহার।

 

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম তোলো নিউজকে সোমবার (৩ জুলাই) তিনি বলেছেন, নীতি ও নৈতিকতা মন্ত্রণালয় কাবুল মিউনিসিপ্যালকে নতুন ডিক্রি কার্যকর এবং নারীদের রূপচর্চা কেন্দ্রের লাইসেন্স বাতিল করার নির্দেশ দিয়েছে।

তালেবান সরকারের এমন নতুন নির্দেশনা জারির পর এ নিয়ে তোলো নিউজের সঙ্গে কয়েকজন নিজেদের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। তাদের একজন, মেকাপ আর্টিস্ট রাইহান মুবারিজ।

তিনি বলেছেন, ‘পুরুষদের চাকরি নেই। যখন পুরুষরা পরিবারের দায়িত্ব নিতে পারছে না, তখন নারীর এসব রূপচর্চা কেন্দ্রে বাধ্য হয়ে কাজ করছে শুধুমাত্র এক টুকরো রুটির জন্য। যদি এখানেও তাদের নিষিদ্ধ করা হয়। আমরা আর কী করতে পারব?’

 

অপর এক মেকাপ আর্টিস্ট বলেছেন, ‘যদি পুরুষদের কাজ থাকত আমরা ঘর থেকে বের হতাম না। আমরা কী করব? না খেয়ে মরে যাব, আমাদের কী করা উচিত? আপনারা চান আমরা মরে যাই।’

মেয়েদের স্কুল, বিশ্ববিদ্যালয় এবং বেসরকারি সংস্থায় কাজ করার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার পর এখন রূপচর্চা কেন্দ্র গুলোও বন্ধ করে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে হার্ডলাইনার তালেবান।

আব্দুল খবির নামে কাবুলের এক বাসিন্দা বলেছেন, এসব প্রতিষ্ঠান একেবারে বন্ধ করে না দিয়ে— সরকারের একটি কাঠামো বা নীতিমালা তৈরি করা উচিত। কাঠামোটি এমনভাবে তৈরি করতে হবে— যেখানে ইসলামেরও ক্ষতি হবে না, দেশেরও ক্ষতি হবে না।

যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনীকে হটিয়ে পুনরায় ক্ষমতা দখলের পরই রূপচর্চাকেন্দ্রগুলোর সামনে থাকা ছবিগুলো মুছে ফেলা শুরু করে তালেবান। এবার এসব কেন্দ্র বন্ধ করারই নির্দেশ দিল তারা

 

 

 

 

আরও খবর

Sponsered content