রাজনীতি

শেখ হাসিনা নৌকা দিছে, আবার ইলেকশন কিসের

  প্রতিনিধি ১৯ জুন ২০২৩ , ১:০৮:৫৪

Spread the love

‘শেখ হাসিনা নৌকা দিছে, আবার ইলেকশন কিসের? কিসের ইলেকশন? আর ইলেকশন যদি হয়, বুঝে নেবেন ইলেকশন কাহাকে বলে।’ পিরোজপুরের কাউখালী উপজেলার শিয়ালকাঠি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী সিদ্দিকুর রহমান গাজীর পক্ষে আয়োজিত সভায় পিরোজপুর জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন মহারাজ এসব কথা বলেন।

কাউখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে শনিবার রাতে এই সভার আয়োজন করা হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ কে এম আবদুস সহিদ। সভায় মহিউদ্দিন মহারাজ প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন। তিনি জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক। তার বক্তব্যের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ইতিমধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে।

মহিউদ্দিন মহারাজ বলেন, সভায় অনেক বক্তা বলেছেন, তারা কাউখালী থেকে সাইকেল (জেপির নির্বাচনী প্রতীক) বিতাড়িত করতে চান। শুধু ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নয়, আগামী উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে সাইকেলকে বিতাড়িত করতে হবে। নৌকাকে বিজয়ী করে সাইকেলকে ভেঙেচুরে কঁচা নদীতে ফেলে দিতে হবে।

জাতীয় পার্টির (জেপি) চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেনের উদ্দেশ্যে মহিউদ্দিন মহারাজ বলেন, আওয়ামী লীগের ভোট নিয়ে এমপি হবেন। আবার আওয়ামী লীগের প্রার্থীকে ঠেকানোর জন্য সাইকেল দেবেন। এটার বিরুদ্ধে আমাদের যুদ্ধ।…এটা কাউখালী, ভাণ্ডারিয়া ও নেছারাবাদের আওয়ামী লীগ মেনে নেবে না।

জেপি’র প্রার্থী সিকদার দেলোয়ার হোসেনকে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত করে মহিউদ্দিন মহারাজ বলেন, শিয়ালকাঠিতে নৌকাকে জয় এনে দিতে এবং সাইকেল বিতাড়িত করতে যা কিছু করতে হয় তিনি করবেন। সাইকেলের প্রার্থী অত্যন্ত ব্যক্তিত্বসম্পন্ন মানুষ।

এই সাইকেলের রোষানলে পড়ে তিনি (সিকদার) যেন ক্ষতিগ্রস্ত না হন। সিকদার যেন দয়া করে বাড়ি চলে যান।